Any Question?

+8801856991116 / +8801714092903
এই শীতে হাতের যত্নে করনীয়

এই শীতে হাতের যত্নে করনীয়

হাড় কাঁপানো শীত যদিও এখনো পরেনি, তবু হালকা একটা শীতের আমাজের অনুভূতি কিন্তু হচ্ছে । এই হালকা শীতের কারণে হাতের স্বাভাবিক ময়েশ্চার নষ্ট হয়ে যায়। ফলে হাতের চামড়া কুঁচকে যায়। এসব বিষয় অনেকের কাছে মহা দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। কিন্তু এতে দুশ্চিন্তার কিছু নেই।

প্রতিদিন কিছু সময় নিয়ে যদি আপনি হাত-পায়ের সঠিক যত্ন নেন তাহলে এই শীতেও আপনি পাবেন  সুন্দর হাত-পা । 

 

১ঃ হাতের ত্বক যদি খসখসে হয় তাহলে এক চা চামচ চিনি ও লেবুর রস নিন। তারপর দুই হাতের তালুতে নিয়ে ঘষতে থাকুন, চিনি যতক্ষণ না  গলে ততক্ষণ। এরপর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। চিনির পরিবর্তে মধুও ব্যবহার করতে পারেন।

 

২ঃ গ্লিসারিনের সাথে গোলাপ জল  মিশিয়ে কটন দিয়ে দুই হাতে ঘষুন। দেখবেন ত্বক কেমন চমৎকারভাবে পরিষ্কার হয়।

 

৩ঃ শীতেকালে বাইরে যাওয়ার আগে হাতে অবশ্যই ময়েশ্চারাইজার মেখে নিতে হবে। হাত মোলায়েম ও মসৃণ রাখতে নিয়মিত স্ক্র্যাব ও মাস্ক ব্যবহার করতে পারেন। ১টি পাতিলেবুর রস ও ২ চা চামচ চিনির মিশ্রণ দিয়ে হাতে ঘষতে পারেন। এতে মরা কোষ উঠে হাত মসৃণ হবে।

 

৪ঃ কয়েক ফোঁটা লেবুর রস, এক টেবিল চামচ দুধের সর বা মাখন ও গ্লিসারিন এক সাথে ভালভাবে মিশিয়ে রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে দুই হাতে ভাল করে ঘষে লাগিয়ে নিন।

 

৫ঃ হাতের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ১ টেবিল চামচ ময়দা একটু দুধে গুলে নিয়ে তা হাতে মেখে ১৫ মিনিট রেখে দিন। তারপর ধুয়ে নিন। এরপর হাতে ময়েশ্চারাইজার লাগাতে ভুলবেন না। 

 

৬ঃ দিনে বেশ কয়েকবার হাতে ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম অথবা লোশন লাগাতে পারেন। বিশেষ করে হাত ধোয়ার পরে অবশ্যই লাগাবেন। শীতের সময় আর্দ্রতার পরিমাণ কম থাকার কারণে হাত শুষ্ক হয়ে যায়। তাই যখনই মনে হবে হাত শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে,তখনই হাতে ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম লাগিয়ে নেবেন।

 

 

৭ঃ কুসুম গরম পানিতে এক ফোঁটা শ্যাম্পু ও এক চিমটি লবন মিশিয়ে ১৫ মিনিট হাত ঐ পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর  ব্রাশ দিয়ে হাত ভালভাবে ঘষে নিন। এরপর পরিষ্কার পানিতে হাত ধুয়ে ভালভাবে পানি মুছে নিন। তারপর ভাল কোন ময়েসচারাইজার লোশন বা ক্রিম লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। সপ্তাহে ২ বার এ পদ্ধতিতে হাতের যত্ন নিন। এতে হাতের ত্বক নরম ও মসৃণ হয়ে উঠবে।

Posted on: 14-Nov-2016

Recent Post

Latest Comment

Add to Cart